Category: কবিতা

আমাদের দেখা হয়েছিল

একবারই আমাদের দেখা হয়েছিল না না একবার নয়,দুইবার শীতের শেষ বিকেলে সুর্য ডুবে গিয়ে যখন সারা আকাশ জুড়ে কুয়াশা নেমে আসছে তখন কোন এক যান্ত্রিক শহরের ব্যস্ত রাস্তায় আমি দৌড়াচ্ছি তোমাকে দেখবো বলে। সময়কে বেঁধে রাখতে না পেরে সময়ের সাথে পাল্লা দিতে মোটর যানে চড়েছি,দৌড়েছি রিকশার মন্থর গতি এড়াতে যদি দুটো মিনিট আগে পৌছাতে পারি […]

কথা দিতে পারি

তুমি আমায় কোন অনুরোধ করো না তুমি অনুরোধ করো এটা আমি মানতে পারি না আমার কাছে কেন তুমি অনুরোধ করবে? আমি চাই তুমি দাবী নিয়ে বলো অনুরোধের চেয়ে দাবী নিয়ে বললে বেশি আপন মনে হয় আমি তোমার অনুরোধ নয়,দাবী মেটাতে ভালোবাসি। তোমার যদি মনে হয় সকালের রোদ গায়ে মাখবে অথচ বিছানা ছেড়ে উঠে জানালার পর্দা […]

নারী দেহ নিয়ে লালসা তোমার

হায়রে অভাগা জাতি, বদলেছ রাতারাতি। ভীড় দেখলেই নারী দেহ নিয়ে করতেছ হাতাহাতি। নারী দেহ নিয়ে লালসা তোমার,সারাক্ষণ করো হাসফাঁস মনে কি পড়েনা এই তুমিইতো নারী দেহে ছিলে দশমাস। হেটে যায় মেয়ে তুমি সেটা দেখে বলে ওঠো খাসা মাল তোমারও যে এক বোন আছে, সেটা ভুলে হলে বেসামাল। অন্যের বোন মেয়েরা সবাই মাল হয়ে যায় চোখে […]

রেজাল্ট কিন্তু দিচ্ছেনা

দেব দেব করে MBBS এর রেজাল্ট কিন্তু দিচ্ছেনা এই ফাঁকে কিছু ঘটে যেতে পারে কেউ তার খোঁজ নিচ্ছেনা। বাড়িতে কোন রান্না না করে হোটেলে যেমন খাওয়া যায় প্রশ্ন পত্র ফাঁস না করেও কখনোবা চান্স পাওয়া যায়। চোখ কান সব খোলা রাখো ভাই কি যে হয় সব আড়ালে গ্যাঞ্জাম লাগে এই কথা নিয়ে প্রতিবাদ করে দাড়ালে। […]

প্রকৃতি প্রেমীর চলে যাওয়া

আমরা যখন বাসার ছাদে টবে লাগানো বনসাইটাও টিকমত চিনে উঠতে পারিনি তুমি তখন যান্ত্রিক এই নগরীর অলিতে গলিতে দেয়ালের ফাঁকে ফাঁকে জন্ম নেওয়া প্রতিটি বৃক্ষ তরুলতাকে চিনেছ, সেগুলোকে মানব সন্তানের মত একএকটি নামে তুমি ডাকতে। শিমুলিয়া গ্রামের আকাশ আজ মেঘে ঢাকা সেই শোকাচ্ছন্ন মেঘ সারা বাংলার আকাশটাকেই ঢেকে ফেলেছে লজ্জাবতী লতারা যেমন হাতের ছোয়ায় নতজানু […]

দুই মেরু

আমি একদিন যাবো তোমার বাড়িতে,তোমার আঙিনায় উত্তর ঘরের বারান্দা থেকে টুল এনে কেউ একজন বসতে দেবে আমায় টুলটাতে বসতে বসতে আমার চোখ তোমাকে খুঁজবে আমার ঘ্রাণেন্দ্রিয় তোমার খোলা চুল থেকে ভেসে আসা সৌরভ খুঁজবে শুধু তুমি এসে দাড়াবেনা আমার সামনের ফাঁকা উঠোনে তুমিতো তখন পায়ে আলতা মেখে নববধুর সাজে কারো আগমনের অপেক্ষায় আমি সেদিন তোমার […]

সীমান্তের কুলবৃক্ষ ও প্যাঁচা

তোমাকে সীমান্তের কুলবৃক্ষ ভেবে কাটাতারের প্রাচীর পেরিয়ে চলে এসেছিল কতিপয় ক্ষুধার্ত প্যাঁচা ওরা তোমার কুলছিড়ে খেয়েছে,তোমার ডাল ভেঙ্গেছে তার পর যেতে যেতে তোমার শিকড়ে ঠোকর দিয়ে গেছে।   তুমি তখন চিৎকার করেছ,কোন পাখি সেই চিৎকারে তোমার পাশে দাড়ায়নি প্যাঁচাদের ঠোকর যখন তোমাকে ক্ষতবিক্ষত করছিল যখন একটু একটু করে তোমার ডাল ভেঙ্গেছিল তোমার কেবলই মনে হচ্ছিল […]

আজ সন্ধ্যায় সেখানেই যাব

আজ সন্ধ্যায় সেখানেই যাব,স্মৃতিতে বুলাবো হাত যেখানে তোমারে ফেলে এসে রোজ করেছি অশ্রুপাত। যে নদীর জলে তোমার দু’পা খুঁজে পেতো কত সুখ আজ সন্ধ্যায় সেখানেই যাব,যেতে আমি উন্মুখ। আকাশে আজকে তারা জ্বলবেনা,থাকবেনা কোন চাঁদ যতক্ষণ খুশি বসে রবো একা,কারো নেই প্রতিবাদ। আজ সন্ধ্যায় সেই আঙ্গিনাতে কেবলই থাকবো একা একাকী কাটাবো এই কথাটাতো বহুকাল আগে লেখা। […]

স্বপ্ন আরও

আমার সাথে কোন দিনও হয়তো তোমার হয়নি দেখা তাই বলে কি নিষেধ আছে তোমায় নিয়ে গল্প লেখা। হয়তো কভু এক জীবনে চোখ রাখিনি তোমার চোখে তাই বলেকি স্বপ্ন দেখা বন্ধ রবে ইহলোকে। আকাশ যখন আঁধার করে হয়তো তখন চাঁদ দেখিনা তোমার প্রতি যে টান আছে জেনে রেখো সব মেকি না। আমারও এক আকাশ আছে সেই […]

গ্রামের টানে

চারপাশে ধান ক্ষেত সবুজের মেলা সবুজের সাথে মিশে কাটাবো এ বেলা। ওই দূর দেখা যায় আমাদের বাড়ি একা আমি মেঠো পথ দেব আজ পাড়ি। উঠোন ভরা রবে সোনা রং ধানে সেটা দেখে খুশি রবে কৃষকের প্রাণে। বাংলার নদী মাঠ প্রকৃতির রুপ মনে হয় সেখানেই রোজ দেই ডুব। হারাই একাকী আমি পাশে কেউ নেই গ্রামে ফিরে […]