সুখে থাকতে ভুতে কিলানোর গল্প

ভ্যাকেশানে বাড়ি ফেরার পর ক্যাডেট সজলকে তার বড় ভাই আনাস জিজ্ঞেস করলেন কিরে সজল এবার কলেজে কয়টা ইডি খেয়েছিস?ইডির কথা শুনলেই সজলের যেন কেমন লাগে।ও তবুও মুখটা হাসিহাসি রেখে বললো ভাইয়া এবার বেশি ইডি খাইনি মাত্র দুইটা খাইছি।ড্রয়িং রুমে তখন ওর ছোট ভাই মেসবাহ ছিল।মেসবাহ আবার বায়না ধরার ওস্তাদ।ভাইয়া যা কিছু কিনবে, যা কিছু পরবে, যা কিছু খাবে তা তার চাইই চাই।মেসবাহ ক্লাস ফোরে পড়ে।সে বায়না ধরলো ভাইয়া একা একা কেন ইডি খেলো? আমিও খাবো।আমাকে ইডি খাওয়াতেই হবে।

ওর কথা শুনে ভাইয়া এবং সজল দুজনেই হো হো করে হেসে উঠলো।কিন্তু কোন কিছুতেই সে দমলো না।তার একটাই কথা আমাকে ইডি দাও, আমি ইডি খাবো।ও ভেবেছে ইডি হয়তো কোন দারুন মজাদার খাবারের নাম।বড় ভাইয়া বললেন, মেসবাহ তোমাকে ইডি খাওয়ানো যাবেনা।ইডি খেতে হয়না।পিচ্চিটা তখন উল্টো যুক্তি দিল।আমি কেন ইডি খেতে পারবো না?ভাইয়া কেন খেলো?যেটা ভাইয়া খেতে পারে সেটা আমিও খেতে পারবো।বড় ভাইয়া দুষ্টুমী করে বললেন ইডি খেলে তোমার হজম হবেনা।এই যুক্তিতেও কাজ হলোনা।সে একটা পাকনা ছেলে।

সে বললো কি বলো ভাইয়া আমার স্টমাক অনেক স্ট্রং।লোহা খেলেও হজম হয়ে যাবে আরতো কোথাকার কোন ইডি।আমি এক সাথে দশটা ইডি খেলেও কিচ্ছু হবেনা।ওর কথা শুনে আবার হাসির রোল পড়ে গেল কিন্তু ও এবার ক্ষেপে উঠে বললো আমাকে ইডি খাওয়াবা কিনা বলো।নইলে আম্মুকে বলে দেব,আর আম্মু তোমাদেরকে বকবে।সজল তখন বললো যা তুই আম্মুকে বল।সে গাল ফুলিয়ে গিয়ে আম্মুকে বললো আম্মু তোমার ছেলে সজল কলেজে একা একা ইডি খেয়ে এসেছে আমার জন্য নিয়ে আসেনি।এখন আমি ইডি খেতে চাইছি আর সে আমাকে ইডি খেতে দিচ্ছেনা।

ইডি বিষয়ে আম্মুর ব্যাপক ধারনা আছে।আম্মু নিজে ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজে পড়াশোনা করেছে।আম্মু বললেন বাবা ইডিতো কোন খাওয়ার জিনিস নয়।মেসবাহ তখন বললো আমি কোন কথাই শুনবো না।ভাইয়া খেয়েছে আমাকেও দিতে হবে, আমি খাবোই খাবো।আম্মু তখন সজলকে বললেন, দে ওকে একটা ইডি খাওয়া।ড্রয়িং রুমের সোফা গুলো সরিয়ে অবশেষে মেসহাবকে ইডি দেওয়া হলো।সে আর কোন কথা বললো না।বড় ভাইয়া শুধু বললেন একেই বলে সুখে থাকতে ভুতে কিলায়।

ইচ্ছে করে ইডি খাওয়ার মজা টের পেয়েছিসতো?।সেদিন বিকেলে বন্ধুদের সাথে আড্ডা শেষে ফেরার পথে সজল তার ছোট ভাই মেসবাহের জন্য গ্রিল আর নান নিয়ে আসলো।ক্লাস ফোরে পড়া মেসবাহকে ডেকে বললো রাতে তোর জন্য গ্রিল আর নান খাওয়ার ব্যবস্থা করেছি।মেসবাহ বললো আমি জীবনেও গ্রিল কিংবা নান কোনটাই খাবো না।একবার ইডি খেয়েই আমার শিক্ষা হয়েছে।গ্রিল আর নান তুমি একাই খাও, আমার খাওয়া লাগবেনা।পিচ্চিটা ভেবেছে গ্রিল বা নান ও ইডির মত ক্যাডেটীয় কোন পানিশমেন্টের নাম!

৬ ডিসেম্বর ২০১৬

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.