Tag: ছোটগল্প

টেরোরিষ্ট

ওয়াশিংটন ডিসির ব্যস্ত রাস্তার ফুটপাত ধরে অনেক মানুষ নিজ নিজ গন্তব্যের পথে অবিরাম হেটে চলেছে।সবাই ভীষণ ব্যস্ত।বলতে গেলে তখনো শহরের ঘুম ভাঙ্গেনি অথচ মানুষ ছুটছে তার কর্মস্থলে।সে জন্যই বলা হয়ে থাকে নিউইয়র্ক আর ওয়াশিংটন শহর কখনো ঘুমায় না।পথে যেতে যেতেই হয়তো কেউ কেউ সেরে নিচ্ছে জরুরী যোগাযোগ।অনেকে কানে মোবাইল ধরে কথা বলছে আর হাটছে।কেউ কেউ […]

ছোটবোনের মেহমানদারী

জেএসসি পরীক্ষার পর বেশ লম্বা ছুটি আমার হাতে।সারাদিন টিভি দেখা,ঘুরতে যাওয়া,গেমস খেলার পরও আমি চেষ্টা করি কিছুটা পড়াশোনা করতে।গল্পের বই বেশি পড়ছি তবে ক্লাস নাইনের বইও সংগ্রহ করে পড়তে চেষ্টা করছি।আবার কখনো কখনো কোন কিছুই পড়তে ইচ্ছে করেনা। এই যেমন আজকে।পড়ার টেবিলে বসে আছি কিন্তু পড়ায় মন বসছে না। অনেকক্ষণ ধরে তাই কলম নিয়ে আঁকিবুকি […]

ইরেজার

জাজাফীর মন ভালো নেই।শাহ মখদুম হল থেকে বেরিয়ে হাটতে হাটতে বঙ্গবন্ধু হলের সামনে দিয়ে শামছুজ্জোহার সমাধি পেরিয়ে সে তখন একাকী হাটছে প্যারীস রোডে।কোন কিছুই তার ভালো লাগছে না।সোডিয়াম বাতির মোহনীয় আলো তার মনকে আরো ভারাক্রান্ত করে তুলেছে।অন্য দিনের মত আজ আর সে তাপসী রাবেয়া হলের দিকে হাটছে না।ওদিকে যাবার সব গুলো রাস্তা বোধহয় গতকালই বন্ধ […]

মানিক জেনারেল স্টোর

–জাজাফী মধুমিতা রোড দিয়ে ঢুকে একটু সামনে এগোতেই হাতের ডানে মোড় নিয়েছে একটি সরু গলি।গলির এই রাস্তাটি আরিচপুরের মধ্য দিয়ে সোজা গিয়ে মিশেছে টঙ্গী বাজারে।আইসক্রিম ফ্যাক্টরী পেরিয়ে মোড় নিয়ে এগোতেই তিনতলা মসজিদ।মসজিদটি সুন্দর এবং পাঁচওয়াক্তই মুসল্লীতে ভরপুর থাকে।যদিও এটির আকার তিনতলা ছাড়িয়ে গেছে অনেক আগেই কিন্তু কি কারণে যেন এখনো এটিকে তিনতলা মসজিদ বলেই সবাই […]

ফজ মেশিনের আবেদন

আশরাফ ভাই চায়ের দাওয়াত দিয়েছিলেন ওনার অফিসে।দেশের একটি প্রথম শ্রেনীর ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট তিনি।অনেক দিন দেখা হয়না তাই ভাবলাম গিয়ে চায়ের আড্ডায় শামিল হই।একই সাথে চা পান করা হবে আবার সুখ দুঃখের গল্পও করা হবে।তবে সমস্যা কী জানেন ইদানিং ব্যাংক গুলোতে গ্রাহক সংখ্যার এতো চাপ যে বসে দু’দন্ড শান্তিমত কথাও বলার উপায় নেই।অবশ্য গ্রাহক সেবা […]

ছোটলোক

বাড়ি যাচ্ছি। কাঁধে ছোট্ট একটি ব্যাগ,ভিতরে বলার মত তেমন কিছু আছে বলে মনে পড়ছে না। আইডি কার্ডটা যদি বলার মত কিছুর তালিকায় ধরা হয় তাহলে অবশ্য বলার মত ঐ আইডি কার্ডটাই আছে। তবে ঐ আইডি কার্ডের তেমন কোন মূল্য নেই। ওটা দেখালে রেশনও পাওয়া যাবে না আবার মাংনাও কোথাও যাওয়া যাবে না।আমার ব্যাগের মধ্যে এখন […]

মাহি ও তার বন্ধু

বাম হাতে ব্যান্ডেজ নিয়ে ক্লাসে ঢুকলো মাহি।বন্ধুরা ওকে ঘিরে ধরে জানতে চাইলো তোর কি হয়েছে?হাতে ব্যান্ডেজ কেন?গত কালকেওতো তুই ভাল ছিলি আজ এ অবস্থা হলো কি করে?এক সাথে এতো গুলো প্রশ্ন করলে ছোট্ট মাহি কি করে উত্তর দিবে?মাহি এবার গবর্ণমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুলে ক্লাস ফোরে পড়ে।বন্ধুরা ওকে খুবই ভালবাসে এবং ও নিজেও বন্ধুদের ভালবাসে।সে শান্ত হয়ে […]