জাজাফী ক্যাডেট স্মৃতি ভ্যাকেশানে গেমস প্রস্তুতি

ভ্যাকেশানে গেমস প্রস্তুতি



আন্তঃহাউজ গেমস কম্পিটিশান ঘিরে তিন হাউজে সাজসাজ রব পড়ে গেছে।জুনিয়রদের দিকে সিনিয়রেরা একটু বেশিই মনোযোগী। ওদের পারফরমেন্সের উপর হাউজের চ্যাম্পিয়ন হওয়া না হওয়া অনেকটাই নির্ভর করছে।কিন্তু সমস্যা হলো গেমস কম্পিটিশানের ঠিক আগে আগেই রমজানের ভ্যাকেশান শুরু হয়ে যাওয়ায় প্রস্তুতির কিছুটা ঘাটতি পড়ে যাবে।হাউস গেমস প্রিফেক্ট ইশতিয়াক ভাই আমাদেরকে ডেকে পাঠালেন।ক্লাস সেভেন সারিবদ্ধ ভাবে দাড়ানো। সামনে ইশতিয়াক ভাই।এই দীর্ঘ ভ্যাকেশানে কিভাবে কি করতে হবে তা বুঝিয়ে বলছেন।বিশেষ করে আন্তঃহাউজ গেমস কম্পিটিশানে হাউজকে চ্যাম্পিয়ন করতে হলে বাড়িতে গিয়েও যে ভালো ভাবে নিয়মিত প্রস্তুতি নিতে হবে তা তিনি গুরুত্ব দিয়ে বললেন।

আমাদের ক্লাসের এ ফর্মের নাবিল একটু শেয়ানা টাইপের।সে বললো জ্বি ভাই বাড়িতে গিয়ে ভ্যাকেশানেও গেমস চর্চা করবো।সব ট্যাকটিসও ভালো করে শিখে নেবো।ইশতিয়াক ভাই খুব খুশি হলেন। তিনি আমাদেরকে শুনিয়ে শুনিয়ে বললেন নাবিলের মত সবাই কিন্তু প্রস্তুতি নিবে।এবার তিনি এহতেশামকে ইশারা করে বললেন এহতেশাম তুমি কি কি প্র্যাকটিস করবা? এহতেশাম বললো ভাই রোজ ক্রিকেট ফুটবল টেনিস খেলবো।ইশতিয়াক ভাই জানতে চাইলেন রোজ কত ঘন্টা খেলবা? এহতেশাম সবাইকে অবাক করে দিয়ে বললো ভাই যতক্ষণ আম্মুর মোবাইলের চার্জ শেষ না হবে ততোক্ষণ খেলবো।কিছুক্ষণ পর দেখা গেলো হাউজ করিডোর ধরে একের পর এক ফ্রন্টরোল দিতে দিতে এক কোণা থেকে অন্য কোণায় যাচ্ছে এহতেশাম।ওর ভ্যাকেশানে গেমস প্রস্তুতি বুঝি তখন থেকেই শুরু হয়ে গেছে।

১০ জুন ২০১৯
ভ্যাকেশানে গেমস প্রস্তুতি
জাজাফী